লুকোচুরি খেলতে ডেকে নিয়ে ৩য় শ্রেণির ছাত্রীকে ৭ কিশোরের গণধর্ষণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

তৃতীয় শ্রেণির ৮ বছরের এক শিশুকে লুকোচুরি খেলতে ডেকেছিল পাড়ার বড় ভাইয়েরা। খুশি মনে তাতে রাজি হয়েছিল বাচ্চা মেয়ে। কিন্তু সেই ‘বড় ভাই’রাই তার উপর নৃশংস অত্যাচার চালায় বলে অভিযোগ। সাত জন মিলে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

 

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের ত্রিপুরার পশ্চিম প্রান্তের তাবারিয়া জেলায়। অভিযুক্ত ৭ শিশুই একই এলাকার এবং মেয়েটি তাদের ভাই বলেই ডাকত। পরিবারের দাবি, ওই ৭ ছেলেকেই মেয়েটি আগে থেকে চিনত। তাই ডাকলেও ভয় পায়নি। নির্দ্বিধায় চলে যায়। মেয়েটির পরিবার জানিয়েছে, ঘটনার পরে সেই মেয়েটি বাড়ি ফিরে এসে সব ঘটনা বাবা-মাকে জানায়। এরপর শনিবার থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ইতিমধ্যেই ৬ শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। একজন পলাতক। তার খোঁজে তল্লাশি চলছে।

নিউ ক্যাপিটাল কমপ্লেক্সের সাব ডিভিশনাল পুলিশ অফিসার প্রিয়া মাধুরী মজুমদার বলেন, ‘মেয়েটির বাবা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। জানিয়েছেন, লুকোচুরি খেলবে বলে ডেকে নিয়ে গিয়ে, শুক্রবার তার মেয়েকে ধর্ষণ করে অভিযুক্তরা।’

 

ওই অফিসার জানান, বাড়ি ফিরে নিজেই গোটা ঘটনা বাবা-মাকে জানায় মেয়েটি। তারপর শনিবার থানায় এফআইআর দায়ের করেন তার বাবা। তার অভিযোগে ভিত্তিতে অভিযুক্ত ছয় কিশোরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এক জনের খোঁজ মেলেনি। তার খোঁজ চলছে।

 

অভিযুক্তরা সকলেই নাবালক বলে জানা গিয়েছে। তাদের মধ্যে চার জনকে জুভেনাইল হোমে রাখা হয়েছে। ডাক্তারি পরীক্ষায় ১২ বছর বয়সি দু’জনের শরীরে আবার করোনা ধরা পড়েছে। হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাদের।

২৪ বাংলাদেশ নিউজ/অনলাইন ডেস্কঃ

আরও পড়ুন