নিকুঞ্জ এক বাসা থেকে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার স্বামী তরিকুল গ্রেফতার

নিকুঞ্জ এক বাসা থেকে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার স্বামী তরিকুল গ্রেফতার

রাজধানীর নিকুঞ্জ এলাকার এক বাসা থেকে জুঁই(২৮) নামের এক নারী লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

 

রাজধানীর নিকুঞ্জ এলাকার এক বাসা থেকে জুঁই(২৮) নামের এক নারী লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সুত্রে জানা যায়, শায়লা পারভীন জুঁইয় তার স্বামীর সাথে নিকুঞ্জ-২,৮ নং রোডের, ৪২ নং বাড়ির নীচ তলায় ভাড়া থাকতেন। গত ১৮ অক্টোবার শায়লা পারভীন জুঁইকে মৃতাবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ বৃহস্পতিবার বিকালে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। এ হত্যা কান্ড ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে নিহত জুঁইয়ে স্বামী তরিকুল ইসলাম জনিকে(৩২) গ্রেফতার করে খিলক্ষেত থানা পুলিশ। নিহত জুঁই ফরিদপুর জেলায় আলিপুরে খাঁ পাড়া গ্রামের মরহুম লাল মিয়ার মেয়ে। নিহত জুঁইয়ের বোন জামাই আলমগীর হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, জুঁই ইডেন মহিলা কলেজ থেকে বিবিএ,এমবিএ সমাপ্ত করেন। বিবিএ পড়াবস্থায় জনির সাথে জুঁই বিবাহ বন্ধনে ৫ আবদ্ধ হয় ৫ বছর পূর্বে। তাদের ৩ বছরের একটি সন্তানও আছে। জুঁইয়ের স্বামী জনি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। নিহত জুঁইদের সাথে পাশের ফ্লাটে বসবাস করতেন তার বোন কেয়া ও তার স্বামী আলম। গত ১৮ সেপ্টেম্ব রাত আনুমানিক ১০ টার সময় জুঁই তার মেঝে বোনকে তাদের সংসারে ঝামেলার কথা মোবাইলে জানায়।এদিকে খবর পেয়ে জুঁইয়ে আত্নীয়রা তাদের বাসা এসে মেঝেতে জুঁইয়ে মৃত দেহ দেখেন বলে জানান তার ভগ্নপতি আলমগীর হোসেন।জুইয়ের আত্নিয়রা জানায় এটা আত্নহত্যা না এটা পরিকল্পিত হত্যা। এঘটনার বিষয়ে খিলক্ষেত থানার ওসি মোঃবোরহান উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, জুঁইয়ের মৃত দেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে তবে নিহত জুঁইয়ে শরীরে অনেক আঘাতের চিহ্ন দেখতে পাওয়া যায় তবে বাকিটা ময়না তদন্তের প্রতিবেদন আসলে জানা যাবে।

 

টুয়েন্টিফোর বানি/কাজি আরিফ হাসান

আরও পড়ুন