জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো “খাঁচায় জীবিত প্রানী দেয়া বন্ধ হোক”

 

 কাজি আরিফ হাসানঃ

গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত হয় “খাঁচায় জীবিত প্রানী দেয়া বন্ধ হোক” আলোচনা সভা। আলোচনা সভার প্রতিপাদ্য বিষয় ছিলো জীবিত প্রানী দেয়া বন্ধ হোক এ বিষয়ে অতিথিবৃন্দদের মধ্যে আফজাল খান(রবিন হুড) তার বক্তব্যে বলেন আশরাফুল মাকলুকাত অর্থাৎ মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব তাদের কোন সমস্য হলে তারা বলতে পারে কিন্তু পশু-পাখিরা বলতে পারে না তাদেরও জীবন আছে,কিন্তু কিছু ব্যক্তিরা পশুপাখিদের ওপর বিভিন্ন ভাবে অত্যাচার করে এটা কখনোই কাম্য নয়। তিনি বলে কিছু দিন আগে একটা জীব প্রেমিক একটা কুকুর নিয়ে হাসপাতালে আছে তার মাথা ও মুখে রক্ত তাকে কোন এক নিষ্ঠুর মানুষ মেরে রক্তাক্ত করেছে কিন্তু কুকুর বলে নিবোর্ধ তাই তার এ অবস্থা এমনকি র‌্যাবিট অনেকেই মেরে ফেলে কিন্তু প্রকৃতিতে আল্লাহ যাকে যে ভাবে সৃষ্টি করেছেন তার রিজিকও দিয়ে দিয়েছে কিন্তু মানুষ কেনো এতো নিষ্ঠু ,আর কেনোই বা নির্মম ভাবে পশুদের ওপর অত্যাচার করে ? এদিকে অতিথিবৃন্দের মধ্যে মোঃ আবু সাইদু (অশোকা ফেলো টঝঅ,বণ্য প্রানী ও পরিবেশ বিশেষজ্ঞ,ইডঊঋ) তার বক্তব্যে বলেন যদি কিছু সময়ের জন্য পাখিরা না থাকে তাহলে পরিবেশ অচল হয়ে যাবে এবং পরিবেশে ভারসম্য হারাবে আজ আমরা অনেক পাখিও দেখতে পারি না তাদেরকে মেরে ফেলার জন্য এমনকি শকুন তো দেখতেই পাওয়া যায় না ,শকুনও মরা-পচা খেয়ে পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখে আর আল্লাহ যার যার রিজিক তার তার জন্য নির্ধারন করে দিয়েছে তার পরও কেনো পশুদের প্রতি এতো অমানবি অত্যাচার। উক্ত আলোচনা সভা বক্তব্য রাখেন ডাঃ ফিরোজ জামান(অধ্যাপক,প্রানি বিদ্যা বিভাগ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়)।এছাড়া আলোচনাসভায় উপস্থিত ছিলেন গণমাধ্যকর্মি, সাংবাদিক ও অন্যান্য ব্যক্তিবর্গরা। এদিকে আলোচনাসভা শুরতে প্রজেক্টরের মাধ্যমে প্রানীবিদের বক্তব্যের ভিডিও প্রতিবেদন দেখানো হয়। আলোচনাসভা জাতীয় প্রেসক্লাবে ২য় তলায়(তফাজ্জল হোসেন মিয়া হলে)বেলা ১২ টায় শুরু হয়ে ১ টা দিকে খাবার বিতরণের মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

আরও পড়ুন