রায়ে সন্তোষ প্রকাশ রিফাতের বাবার

রায়ে রিফাতের বাবার সন্তোষ প্রকাশ

২০১৯ সালের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে শত শত লোকের উপস্থিতিতে স্ত্রীর সামনে রিফাত শরীফকে (২৫) কুপিয়ে হত্যা করা হয়। পরে রিফাতকে কুপিয়ে হত্যার একটি ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে তা ভাইরাল হয়।

বরগুনায় চাঞ্চল্যকর রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। এছাড়া এ মামলায় ৪ জনকে খালাস প্রদান করা হয়েছে।

রায়ে রিফাত শরীফের বাবা দুলাল শরীফ সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

 

তিনি বলেন, এক বছর ধরে আমাদের পরিবারে সদস্যরা কাঁদছি। আমাদের নির্ঘুম রাত কেটেছে। তবে ওই কান্না আর আজকের কান্নার মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। এই কয়টা মাস এ দিনটার জন্যই অপেক্ষা করেছিলাম। এ রায়ের মধ্য দিয়ে রিফাতের আত্মা শান্তি পাবে বলে দাবি করেন তিনি।

 

তিনি আরও বলেন, আমরা সুবিচার পেয়েছি। তবে রায় কার্যকর না হওয়া পর্যন্ত স্বস্তি পাচ্ছি না। কাঙ্ক্ষিত রায় পাওয়ায় সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতাও জানান দুলাল শরীফ।

 

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি (১৯), মো. রাকিবুল হাসান ওরফে রিফাত ফরাজী (২৩), আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকন (২১), মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত (১৯), রেজোয়ান আলী খান হৃদয় ওরফে টিকটক হৃদয় (২২) ও মো. হাসান (১৯)।

 

খালাসপ্রাপ্তরা হলেন- রাফিউল ইসলাম রাব্বি (২০), মুসা (২২), সাগর (১৯) ও কামরুল হাসান সায়মুন (২১)।

 

২০১৯ সালের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে শত শত লোকের উপস্থিতিতে স্ত্রীর সামনে রিফাত শরীফকে (২৫) কুপিয়ে হত্যা করা হয়। পরে রিফাতকে কুপিয়ে হত্যার একটি ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে তা ভাইরাল হয়।

আরও পড়ুন