উত্তরে পানিবন্দি লাখো মানুষ, ক্ষতির মুখে ফসলি জমি

উত্তরে পানিবন্দি লাখো মানুষ, ক্ষতির মুখে ফসলি জমি

ফের বন্যার হানা উত্তরে। বিচ্ছিন্ন সড়ক, পানিবন্দি খেটে খাওয়া মানুষের জীবনযাত্রা। দেশের ৯টি নদ-নদীর পানি বিপৎসীমার উপরে বইছে। এরমধ্যে বৃদ্ধি পেয়েছে ৫৬টির। অপরিবর্তিত আছে ৬টির। পানিবন্দি কয়েক লাখ মানুষ।

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ভেঙে গেছে করতোয়া নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ। এতে গোবিন্দগঞ্জ-দিনাজপুর ঘোড়াঘাট আঞ্চলিক মহাসড়ক ডুবে যাওয়ায় বন্ধ যোগাযোগ।

 

নাটোরের সিংড়ায় আত্রাই নদীর পানি কিছুটা কমেছে। তবে এখনও পানির সাথে লড়ছেন লাখো মানুষ। ঘরবাড়ি ছেড়ে বেশিরভাগ চলে গেছেন আশ্রয় কেন্দ্রে।

 

নওগাঁর মান্দা, আত্রাই ও সদর উপজেলায় প্লাবিত অর্ধশত গ্রাম। ডুবে গেছে ১০ হাজার হেক্টর ফসলের খেত।

 

লালমনিরহাটে তিস্তার রাক্ষসী রূপে বিপর্যস্ত জনজীবন। ভাঙনে বিলীন গ্রামের পর গ্রাম।

 

অভিযোগ, ভাঙন ঠেকাতে স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ডকে জানানো হলেও কানে তোলেননি কেউই।

 

যদিও রাজশাহীর বাগমারায় আত্রাই ও বারনই নদীর পানি আগের চেয়ে কমেছে। তারপরও ১২টি ইউনিয়নে দুর্ভোগে অন্তত ৫০ হাজার মানুষ। ক্ষতির মুখে ফসলি জমি।

আরও পড়ুন