ফেসবুকে স্ট্যাটাস লিখে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে সাভারের এক ব্রিজ থেকে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজের ১৪ ঘণ্টা পর বিকাশ ইসলাম নামের এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস।

সোমবার (১৫ মার্চ) নামাবাজার ব্রিজের নিচে থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস। এর আগে গত ১৪ মার্চ রাতে নামাবাজার এলাকায় ব্রিজ থেকে বংশাই নদীতে লাফ দেয় বিকাশ।

মৃত বিকাশ কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর থানার বাহির মাদিম গ্রামের আমানের ছেলে। সে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

স্থানীয়দের কাছে জানা গেছে, রেডিওকলোনি এলাকা থেকে গত ১৪ মার্চ সন্ধ্যায় নিখোঁজ হয় বিকাশ। পরে তার জুতা সাভারের নামাবাজার এলাকার বংশী নদী থেকে উদ্ধার করা হয়। সেই জুতা দেখেই বিকাশ ইসলাম নদীতে ঝাঁপ দিয়েছে বলে নিশ্চিত হয় স্বজনরা। পরে তার ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেখে পুরোপুরি নিশ্চিত হয় স্বজনরা।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরি দলের প্রধান মোঃ সঞ্জয় খান জানান, তারা খবর পেয়ে সকালে ৭ সদস্যের একটি ডুবরি দল এসে নামাবাজার ব্রিজের নিচে খোঁজা শুরু করে। দুই ঘণ্টা পর যেখানে লাফ দিয়েছে তার একটু পাশে থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহতের মরদেহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিকুর রহমান বলেন, হতাশা থেকেই নদীতে লাফিয়ে পড়ে ওই যুবক আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করছি। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের হবে বলেও জানান তিনি।

সূত্রঃ সময় নিউজ

 

আরও পড়ুন