জবির ৩৪২ ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য ফাঁস

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ফেসবুক ব্যবহারকারী ৩৪২ জন শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির অ্যাকাউন্টের তথ্য ফাঁস হয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) বিকেলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রযুক্তি কর্মী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত এক সাংবাদিককে ফাঁস হওয়া শিক্ষার্থীদের তথ্য প্রদান করেন।

ফাঁস হওয়া তথ্যের মধ্যে জবিতে অধ্যয়নরত ও কর্মরতদের মধ্যে ৩৪২ জনের তথ্য প্রকাশিত হয়েছে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে, ফেসবুক ব্যবহারকারীর ফোন নম্বর, ফেসবুক আইডি নম্বর, পুরো নাম, ঠিকানা, কর্মস্থল, প্রোফাইল এবং কিছু ক্ষেত্রে জন্মতারিখ ও ইমেইল ঠিকানা। এই তালিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছেন।

তবে এই ৩৪২ জনের ফেসবুক আইডিতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য যুক্ত রয়েছে। এ ছাড়া আইডিতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যযুক্ত নেই এমন অনেকেই থাকতে পারেন, তাই তাদের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী হিসেবে চিহ্নিত করা সম্ভব হচ্ছে না।

এ বিষয়ে জবির আইটি দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার আচার্য্য সময় নিউজকে বলেন, যাদের তথ্য ফাঁস হয়েছে ভবিষ্যতে তাদের বিভিন্নভাবে হয়রানি বা হেনস্তা কররা সম্ভাবনা থেকে যায়। ফাঁস হওয়া আইডিগুলোর সংশ্লিষ্ট সকল নিরাপত্তায় হস্তক্ষেপ করার সুযোগ রয়েছে চক্রটির। কোনো অপরাধী চক্র ওই নম্বরসমূহের দ্বারা প্রযুক্তির মাধ্যমে ব্যবহারকারীর অন্য ব্যক্তিগত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সংগ্রহের মাধ্যমে ক্ষতি করতে পারবে। তারা যে কাউকে লক্ষ্য করে তার সব তথ্য নিয়ে আলাদা প্রোফাইল রেডি করে তা অন্য জায়গায় ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে।

প্রাথমিক সতর্কতা জন্য করণীয় সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এক্ষেত্রে যাদের নাম আছে, তারা থানায় জিডি করে রাখতে পারেন। ফেসবুকে ইমেইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন। এ ছাড়াও প্রোফাইলে থাকা এমন কোনো তথ্য যা ক্ষতি বয়ে আনতে পারে সেগুলো প্রোফাইল থেকে এমন সরিয়ে ফেলতে হবে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশসহ ১০৬ দেশের ৫৩ কোটি ৩০ লাখ ফেসবুক ব্যবহারকারীর ফোন নম্বর ও ব্যক্তিগত তথ্য অনলাইনে ফাঁস হয়েছে। এসব তথ্য প্রকাশ করে একটি লো-লেভেল হ্যাকিং প্ল্যাটফর্ম প্রযুক্তি বিশ্বে সাড়া ফেলে দিয়েছে। তথ্য ফাঁস হওয়ার তালিকায় বাংলাদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারী রয়েছেন ৩৮ লাখ।

১০৬ দেশের মধ্যে এতে সবচেয়ে বেশি ৩ কোটি ২০ লাখ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবহারকারীদের। রয়েছে যুক্তরাজ্যের এক কোটি ১০ লাখ ও ভারতের ৬০ লাখ ব্যবহারকারীর গোপনীয় তথ্য।

অনেকটা বিনামূল্যে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের এসব তথ্য অনলাইনে একজন বিক্রি করছে বলে রয়টার্সের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

তবে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো অফিসিয়াল মন্তব্য প্রদান করেনি। এর আগে গত কয়েক বছরে বেশ কয়েকবার বিশ্বের বৃহত্তম এ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের তথ্য ফাঁস হয়েছে।

টুঃবাঃনিঃ/এস.কে
আরও পড়ুন