সবাই পাশ কাটিয়ে গেলেও ইসরায়েলি নিপীড়ন মেনে নেব না: এরদোগন

ফিলিস্তিনে ইসরায়েলি হামলার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে বিশ্বকে আহ্বান জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। শুক্রবার (১৪ মে) তিনি বলেন, যদি গোটা বিশ্বও পাশ কাটিয়ে যায়, তবুও ইসরায়েলি নিপীড়ন মেনে নেবে না তুরস্ক।-খবর ইয়ানে শাফাকের

ক্ষমতাসীন দল একে পার্টির এক ভার্চুয়াল বৈঠকে তিনি বলেন, যারা গাজায় ইসরায়েলি রক্তপাতে নীরব কিংবা প্রকাশ্যে সমর্থন দিচ্ছেন, তাদের মনে রাখা উচিত—একদিন তাদের পালাও আসবে। সাধারণ পরিষদে নেওয়া সিদ্ধান্ত অনুসারে জেরুজালেমে শান্তি নিশ্চিত করা জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের দায়িত্ব।

শান্তির নিশ্চিতের দায়িত্ব নিতে ও জাতিসংঘের যে কোনো উদ্যোগে সক্রিয়ভাবে সমর্থন দিতে তুরস্ক প্রস্তুত বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, ইসরায়েলি হামলার বিরুদ্ধে ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি) যদি কোনো বাস্তবিক পদক্ষেপ না নেয়, তবে সংস্থাটির অস্তিত্ব আস্তা হারিয়ে ফেলবে।

এদিকে অবরুদ্ধ গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর হামলা অব্যাহত চলছে। শুক্রবারও (১৪ মে) বিমান হামলার পাশাপাশি কামানের গোলাও নিক্ষেপ করা হচ্ছে।

এতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১৯। নিহতদের মধ্যে ৩১টি শিশু ও ১৯ নারী রয়েছেন।

পাঁচদিন আগে শুরু হওয়া সংঘাতে এখন পর্যন্ত ৮৩০ জনের মতো আহত হয়েছেন। উত্তর গাজার জাতিসংঘ পরিচালিত স্কুলে আশ্রয় নিতে দেখা গেছে হাজার হাজার গাজাবাসীকে।

এ যাবত কালের সবচেয়ে সহিংস রাত পার করার জানিয়েছেন ফিলিস্তিনিরা। সহিংসতা বন্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের আহ্বান সত্ত্বেও ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেন, অভিযান অব্যাহত থাকবে।

প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের রকেট হামলাও অব্যাহত রয়েছে। শুক্রবার সকালের দিকে আশকেলন শহরে তাদের রকেট আঘাত হেনেছে।

ইসরায়েলের বিভিন্ন স্থানে শত শত রকেট হামলা করা হয়েছে। এছাড়া পশ্চিমতীরে ইসরায়েলের অবৈধ বসতিস্থাপনকারী ও ফিলিস্তিনি নাগরিকদের মধ্যে সংঘাত অব্যাহত রয়েছে।

দক্ষিণ লেবানন থেকেও ইসরায়েলে তিনি রকেট হামলা করা হয়েছে।

সুত্রঃ সময় নিউজ
আরও পড়ুন