‘ইসরায়েলকে ঘৃণা করে যাব, ফিলিস্তিনিরা জানুক বাংলাদেশ তাদের বন্ধু’

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় দখলদার ইসরায়েলের বর্বর হামলার প্রতিবাদ জানিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

তিনি বলেন, ‘ফিলিস্তিনিদের নির্মম হত্যার কোনো প্রতিকার না করতে পারি, কিন্তু নীরব প্রতিবাদ তো করতে পারব। ফিলিস্তিনিরা জানুক বাংলাদেশ তাদের অকৃত্রিম বন্ধু।’

ইসরায়েলের নির্মম হামলার প্রতিবাদে বাইসাইকেল করে ময়মনসিংহ ও ঢাকা ঘুরে হবিগঞ্জে এসে পৌঁছান তিনি। তার সঙ্গে আরও তিন ব্যক্তি ছিলেন।

এরপর সোমবার (১৭ মে) ফেসবুক লাইভে ব্যারিস্টার সুমন বলেন, ‘আপনারা জানেন যে, গত কয়েক দিন ধরে যেভাবে নির্বিচারে ইসরায়েল বোম বর্ষণ করছে শত শত ফিলিস্তিনির ওপর। শত শত মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। পুরো বাংলাদেশ, এমনকি বাংলাদেশ সরকার এর প্রতিবাদ জানিয়েছে, এই হামলার প্রতি ঘৃণা প্রকাশ করেছে।’

তিনি বলেন, ‘দল-মত, ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে এই ধরনের হত্যাযজ্ঞকে আমরা ঘৃণা করি। ঘৃণা প্রকাশ করার সঙ্গে সঙ্গে আজকে আমি আমার নিজের এলাকায় তিনজন বাইসাইকেল চড়ে শুধু সেইভ ফিলিস্তিন বক্তব্য ধারণ করে ময়মনসিংহ থেকে এখানে এসেছি। একজন হবিগঞ্জ, একজন ময়মনসিংহ এবং একজন ঢাকার।’

ব্যারিস্টার সুমন বলেন, ‘আমরা জানি হয়তো এখানে চিৎকার করে ইসরায়েলের কিছুই করতে পারব না। যে জায়গায় হোক অন্তত মানুষ হত্যা হলে বাংলাদেশের মানুষ এবং হাদিসেও তো আছে প্রতিবাদ করতে না পারেন, নীরবে দাঁড়িয়ে ঘৃণা প্রকাশ করেন। আমরা নীরবে দাঁড়িয়ে ঘৃণা প্রকাশ করতে পারছি।’

পরে ময়মনসিংহ থেকে আসা এক বাইসাইকেল আরোহীর সঙ্গে কথা বলেন ব্যারিস্টার সুমন। তিনি জানান, গতকাল ভোর ৬টার দিকে বের হয়ে দুইশ’ কিলোমিটার রাস্তা অতিক্রম করে এখানে এসেছেন।

সুমন বলেন, ‘ফিলিস্তিনের ওপরে যে অত্যাচার হচ্ছে, তাতে কেউ মুখ খুলতে চায় না। কারণ মোড়ল রাষ্ট্ররা বিভিন্ন কারণে এই ফিলিস্তিনিদের প্রতি সহানুভূতি দেখায় না। কিন্তু আমরা আমাদের ঘৃণা প্রকাশ করে যাব, যাতে ফিলিস্তিনিরা জানে যে, বাংলাদেশের মানুষ তাদের পক্ষে।’

২৪ বাংলাদেশ নিউজ/এসকে
আরও পড়ুন