শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে গিয়ে প্রাণ গেল জামাই’র

ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে শিমরাইলকান্দি পাওয়ার হাউজ রোডে ৫তলা ভবন থেকে পড়ে সাইফুল ইসলাম বিপুল (৩২) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। সোমবার (১৭ মে) রাত সাড়ে ১০টায় দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত বিপুল নারায়ণগঞ্জ জেলার গলাচিপা উপজেলার হেলাল আলমের ছেলে। সে নারায়ণগঞ্জের একটি গার্মেন্টসে কর্মরত ছিলেন।

নিহতের স্ত্রী হাবিবা আক্তার শায়েলা জানান, গত ২০২০ সালে ডিসেম্বর মাসে তার সাথে বিপুলের বিয়ে হয়। ঈদ উপলক্ষে গত ২৮ রমজানে বাপের বাড়িতে আসেন তারা। সোমবার সারাদিন প্রচণ্ড গরম থাকার কারণে রাতে বাতাসের হাওয়া খেতে পরিবারের সবাই তাদের ভাড়াটিয়া ৫ তলা বাসার ছাদে যায়। এ সময় তার স্বামী বিপুল ছাদের রেলিং এ দুই পাশে পা রেখে মোবাইল ব্যবহার করছিলেন। হঠাৎ করে অসাবধানতা বসত বিপুল ৫ তলা ছাদ থেকে নিচে পড়ে যায়।

পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আবদু্ল্লাহ আল মামুন বলেন, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই বিপুল নামের ওই ব্যক্তি মারা গেছেন। তাকে আমরা মৃত অবস্থায় পেয়েছি। তার মাথার পিছনে জোড়ে আঘাত লাগার কারণে মস্তিষ্কে ক্ষতি হয়। যার কারণে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা গেছেন। হাসপাতালের নিয়ম অনুযায়ী নিহতের মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম জানান, ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঠিক কারণ ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে।

২৪ বাংলাদেশ নিউজ/এসকে
আরও পড়ুন