ঘূর্ণিঝড়ের সময় যে ৬টি কাজ করা জরুরি

পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর এবং এর কাছাকাছি এলাকায় অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি ঘনীভূত হয়ে একই এলাকায় ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’-এ পরিণত হয়েছে। বুধবার (২৬ মে) দুপুর নাগাদ ভারতে আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড়টি। ভারতের উড়িষ্যা-পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বাংলাদেশের খুলনা উপকূলে আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’।

উপকূলে আঘাত হানার পর ঘূর্ণিঝড়টি টানা ১০ থেকে ১২ ঘণ্টা তাণ্ডব চালাতে পারে বলে জানা গেছে। এ সময় বাতাসের গতি ঘণ্টায় গড়ে ১৮০ থেকে ২০০ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে। ঘূর্ণিঝড় ইয়াস মোকাবেলায় উপকূলীয় অঞ্চলগুলোতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে জেলা প্রশাসন।

প্রস্তুত করা হচ্ছে আশ্রয়কেন্দ্রগুলো। এ সময়ে বাড়িকে নিরাপদ ভেবে ঘরে থাকারও চিন্তা করছেন অনেকে। ঘূর্ণিঝড়ের সময় ঘরে থাকলে কিছু বিষয় খেয়াল রাখা জরুরি। এবিসি ডট নেটের দেয়া কিছু নির্দেশনা তুলে ধরা হলো-

১. ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানার সঙ্গে সঙ্গে বা আগেই বাসার বিদ্যুৎ লাইন বন্ধ করে দিতে হবে। এছাড়া গ্যাস লাইনও বন্ধ করে দিতে হবে।

২. বাসায় জরুরি চিকিৎসার প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র থাকলে সেগুলো হাতের কাছেই রাখতে হবে। যাতে দুর্ঘটনা ঘটলে দ্রুতই ব্যবস্থা নেয়া যায়।

৩. নিজে ও পরিবারের সদস্যদের বাড়ির মধ্যে অপেক্ষাকৃত নিরাপদ স্থানে রাখতে হবে। ঘরের যে স্থানটি বেশি মজবুত সেখানে থাকতে হবে।

৪. ব্যাটারিচালিত রেডিও থাকলে ভালো। রেডিও চালু রাখতে পারেন। সর্বশেষ তথ্য পাওয়ার জন্য সবচেয়ে ভালো উপায়।

৫. যদি আপনার বাড়িতে ফাটল বা ভাঙন দেখা যায়, তাহলে দ্রুত শক্ত কোনো জিনিস যেমন, টেবিল, বেঞ্চ বা শক্ত ম্যাট্রেস এর নিচে অবস্থান নিতে হবে।

৬. যথাযথ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক নিরাপদ ঘোষণা বা ঘূর্ণিঝড়ের সমাপ্তি ঘোষণা না করা পর্যন্ত নিরাপদ স্থান থেকে বের হওয়া যাবে না।

সুত্রঃ সময় নিউজ
আরও পড়ুন