চলন্ত ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ছাত্রলীগ নেতার পরিবারের পাশে সতীর্থরা

চাঁদপুরে চলন্ত ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ছাত্রলীগ নেতা শেখ মেহেদী হাসান রুবেলের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তার সতীর্থরা। এ জন্য ৫ লাখ টাকার একটি তহবিল গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যার প্রধান করা হচ্ছে চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি এবং বর্তমানে জেলা আওয়ামী লীগ মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েলকে।

চাঁদপুর পৌরসভার ওয়ার্ড কাউন্সিলর কবির হোসেন চৌধুরী জানান, দুর্ঘটনায় নিহত শেখ মেহেদী হাসান রুবেলের স্ত্রী ছাড়াও অয়ন নামে তিনবছরের একটি শিশু সন্তান রয়েছে। তাই শিশু সন্তানের ভবিষ্যৎ চিন্তা করে ৫ লাখ টাকার একটি আর্থিক তহবিল গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যা দিয়ে তার শিক্ষাবিস্তারে বিশেষ ভূমিকা পালন করবে। কবির হোসেন চৌধুরী আশা করছেন, উদ্যোগটি সফল হলে শিশু অয়নের ভবিষ্যৎ নিয়ে অন্যদের দুশ্চিন্তা করতে হবে না।

এদিকে, শেখ মেহেদী হাসান রুবেলের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে গতকাল চাঁদপুর পৌরসভার শেখেরহাট জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন- পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েল, ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, জেলা ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট জাহিদুল ইসলাম রোমান, নিহত শেখ মেহেদী হাসান রুবেলের বাবা বাচ্চু শেখ, ওয়ার্ড কাউন্সিলর কবির হোসেন চৌধুরী, আলমগীর হোসেন গাজী, সাংবাদিক এএইচএম আহসান উল্লাহ, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি জহিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, যুবলীগ নেতা আবু কাশেম গাজী প্রমুখ।

মিলাদ ও দোয়ায় মোনাজাত পরিচালনা করেন শেখেরহাট জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আক্তার হোসেন।

প্রসঙ্গত, গত (২৯ মে) শনিবার দুপুরে চাঁদপুর শহর থেকে বাড়ি ফেরার পথে মুন্সিবাড়ি এলাকায় চলন্ত ট্রেনের ধাক্কায় প্রাণ হারান মোটরসাইকেল আরোহী শেখ মেহেদী হাসান রুবেল (২৯)। তিনি চাঁদপুর পৌরসভার ১৩ নাম্বার ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

দুর্ঘটনায় তার অকাল মৃত্যুতে সতীর্থদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। এ দুর্ঘটনায় রুবেলের সঙ্গী আরেক ছাত্রলীগ কর্মী রাজন গুরুতর আহত হন।

সুত্রঃ সময় নিউজ
আরও পড়ুন