বাবা-মা-বোন হত্যায় ৪ দিনের রিমান্ডে মেহজাবিন

 

রাজধানীর কদমতলীতে তিন জনকে হত্যায় মেহজাবিন মুন ও তার স্বামী শফিকুল ইসলামকে আসামি করে মামলা হয়েছে। স্বজনদের দাবি শফিকুলই হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী। শফিকুল অসুস্থ থাকায় কেবল মেহেজাবিনকে চার দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

ঢাকা মেডিকেলের মর্গে হত্যার শিকার হওয়া তিনজনের ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৯ জুন) সকালে কদমতলীর মুরাদপুর রজ্জব আলী সরদার রোডের ৫ তলা বাড়ির দ্বিতীয় তলা থেকে মুনের বাবা-মা ও বোনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। বাবা-মা, বোনকে হত্যার পর মেহজাবিন ইসলাম মুন নিজেই ট্রিপল নাইনে ফোন করলেও স্বজনদের দাবি ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী তার স্বামী শফিকুল ইসলাম। যাকে ভুক্তভোগী হিসেবে উদ্ধার করে পুলিশ।

হত্যার শিকার হওয়া তিন জন হলেন- মেহজাবিনের বাবা মাসুদ রানা (৪৮), মা মৌসুমী ইসলাম (৪৬) ও বোন জান্নাতুল ফেরদৌস মৌহিনী (২০)।

স্বজনদের দাবি, দীর্ঘদিন ধরে টাকার জন্য শ্বশুরকে চাপ দিচ্ছিলেন শফিকুল। টাকা না দেয়ায় মেহেজাবিনের আগের ঘরের মেয়েকে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছিলেন তিনি। হত্যাকাণ্ডটিও পরিকল্পিত বলে দাবি তাদের।

তবে, পুলিশ বলছে, হত্যাকাণ্ডের পেছনে বেশকিছু বিষয় কাজ করতে পারে। তদন্তে সব দিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে ডিএমপি ওয়ারী জোনের ডিসি শাহ ইফতেখার আহমেদ।

২০১৬ সালেও একটি হত্যা মামলায় কয়েক মাস কারাগারে থাকতে হয় মেহজাবিন ও শফিকুলকে।

টুয়েন্টিফোর বাংলাদেশ নিউজ/এসকে
আরও পড়ুন