বাংলাদেশসহ ১৭ দেশ আইসিসি ইভেন্ট আয়োজনে আগ্রহী

আইসিসির ভবিষ্যৎ সফর কর্মসূচি অনুযায়ী আগামী ২০২৪-৩১ সাল পর্যন্ত পরবর্তী চক্রে বৈশ্বিক ইভেন্ট আয়োজনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছে বাংলাদেশসহ ১৭টি দেশ। এ চক্রে হবে মোট আটটি টুর্নামেন্ট।

 

সোমবার এক বিবৃতিতে আয়োজক হতে ইচ্ছুক ১৭টি দেশের নাম প্রকাশ করে আইসিসি। বাংলাদেশ ছাড়া অন্য দেশগুলো হলো অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, ভারত, আয়ারল্যান্ড, মালয়েশিয়া, নামিবিয়া, নিউ জিল্যান্ড, ওমান, স্কটল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, সংযুক্ত আরব আমিরাত, পাকিস্তান, যুক্তরাষ্ট্র ও জিম্বাবুয়ে ‘প্রাথমিক কৌশলগত প্রস্তাবনা’ জমা দিয়েছে আইসিসির কাছে।

 

সামনের চক্রে আটটি টুর্নামেন্টের মধ্যে আছে ছেলেদের দুটি বিশ্বকাপ, চারটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও দুটি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি। এসব টুর্নামেন্ট আয়োজনে সদস্যদেশগুলোর কাছে প্রাথমিক প্রস্তাব চেয়েছিল আইসিসি। সেখানে জমা পড়েছে ১৭টি দেশের নাম।

 

তবে, পূর্ণ সদস্যদেশগুলোর মধ্যে শুধু আফগানিস্তানই আবেদন করেনি। আইসিসি জানিয়েছে, এককভাবে আয়োজনের জন্য যেমন আবেদন করেছে দেশগুলো, তেমনি আছে যৌথ প্রস্তাবও।

 

আইসিসি জানিয়েছে, বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল এবং মেয়েদের ও অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ইভেন্টের আয়োজক নির্ধারণ হবে ভিন্ন প্রক্রিয়ায় এবং তা এই বছরের শেষ দিকে ঘোষণা করা হবে।

 

আগামী সেপ্টেম্বরে এই ১৭টি দেশ আরও বিস্তারিতভাবে তাদের প্রস্তাবনা জমা দেবে এবং আইসিসি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবে আলোচনা শেষে। জানা গেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ২০২৫ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফি আয়োজন করতে আগ্রহী। আর পাকিস্তান ছয়টি ইভেন্ট আয়োজনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছে, তা সম্ভব না হলেও অন্তত একটি টুর্নামেন্টের আয়োজক হতে চায় তারা।

 

আইসিসি টুর্নামেন্ট আয়োজনের প্রাথমিক প্রস্তাব পাওয়ার পর এখন দ্বিতীয় পর্যায়ে যাবে এই প্রক্রিয়া।

টুয়েন্টিফোর বাংলাদেশ নিউজ/এসকে
আরও পড়ুন