অক্সিজেন সংকট তীব্র হচ্ছে

করোনা রোগী বেড়ে যাওয়ায় অক্সিজেন সংকটের শঙ্কা দেখা দিয়েছে। বর্তমানে প্রতিদিন গড়ে ২০০ থেকে ২১০ টন অক্সিজেনের প্রয়োজন হচ্ছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, বর্তমানে দেশে উৎপাদনকারী পাঁচটি প্রতিষ্ঠান প্রতিদিন গড়ে ২৩৫ টন অক্সিজেন সরবরাহ করার সক্ষমতা রয়েছে। অক্সিজেন সংকট নিরসনে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণের তাগিদ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা ।

 

ভারতে করোনার ২য় ঢেউয়ে দেশজুড়ে ছিল তীব্র অক্সিজেন সংকট। অক্সিজেনের অভাবে টালমাটাল ছিল সারা ভারত। অক্সিজেন না পেয়ে মৃত্যুর ঘটনাটাও ঘটে।

 

এরই মধ্যে দেশে সাতক্ষীরা ও বগুড়ায় হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাবে করোনা রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠে। ফলে করোনা চিকিৎসায় আবার আলোচনায় অক্সিজেন।

 

অবশ্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম জানান, লিন্ডে বাংলাদেশ থেকে দিনে ১১০ টন পর্যন্ত অক্সিজেন পাওয়া যাচ্ছে। স্পেকট্রা ৬৮ টন এবং আবুল খায়ের, ফ্রেস ও ইসলাম থেকে ৫৭ টন পর্যন্ত অক্সিজেন পাওয়া যাচ্ছে। সব মিলিয়ে প্রতিদিন পাওয়া যাচ্ছে গড়ে ২৩৫ টন অক্সিজেন। কিন্তু চাহিদা আছে ২০০ থেকে ২১০ টনের মধ্যে।

 

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিইউ প্রধান অধ্যাপক ডা. এ কে এম আখতারুজ্জামান জানান, ভারতের মত অবস্থা যেন না হয় সেজন্য দ্রুতই অক্সিজেনের যোগান করতে হবে। একই কথা বলেছেন, কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সদস্য অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম।

 

তবে আশার কথা দীর্ঘ আড়াই মাস পর ভারত থেকে বাংলাদেশে অক্সিজেন আমদানি আবার শুরু হয়েছে।

টুয়েন্টিফোর বাংলাদেশ নিউজ/এসকে
আরও পড়ুন