মুক্তি পেলেন পরীমনি

গ্রেপ্তারের ২৭ দিন পর অবশেষে মুক্তি পেলেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। বুধবার সকার সাড়ে নয়টার দিকে তাকে কাশিমপুর কারাগার থেকে মুক্তি দেয়া হয়।এ সময় পরীমনির স্বজনরা কারা ফটকে উপস্থিত ছিলেন।

মাদক মামলার তদন্ত প্রতিবেদন না দেয়া পর্যন্ত গতকাল তার জামিন মঞ্জুর করেন ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ।তবে আদেশের কপি গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে না পৌঁছায় কালকে তাকে মুক্তি দেয়া হয়নি। আদেশের কপি গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে পৌঁছানোর পরেই আজ তাকে মুক্তি দেয়া হলো।

গত ৪ আগস্ট নিজ বাসা থেকে মাদক মামলায় গ্রেপ্তারের পর গত ২৬ দিন ধরে দেশ জুড়ে আলোচনা সমালোচনার শীর্ষে ছিলেন চিত্রনায়িকা পরীমনি।

এরমধ্যে ৩ দাফায় মোট ৭ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিআইডি। এসময়ে বেশ কয়েকবার পরীমিন জামিন আবেদন করা হলেও তা নাকচ করেন আদালতে। উচ্চ আদালতে যান তার আইনজীবিরা। অবশেষে মঙ্গলবার মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক ইমরুল কায়েশ ৫০ হাজার টাকা মুচলেকায় তার জামিন মঞ্জুর করেন। শুনানিতে নারী, অভিনেত্রী ও তার অসুস্থতার বিষয়গুলো উত্থাপন করেন আইনজীবীরা।

রাষ্ট্রপক্ষ জানায়, পরীমনির বেশকিছু চলচ্চিত্রের কাজ অসমাপ্ত থাকায় পরিচালক ও প্রযোজকরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন, জামিন মঞ্জুরে এসব বিষয় গুরুত্ব পেয়ে থাকতে পারে। শুনানিতে তিনি পরীমনির বাসা থেকে মাদক উদ্ধারের তথ্য তুলে ধরে জামিন না দেয়ার আর্জি জানান।

রাজধানীর বনানীর ১২ নম্বর রোডে পরীমনির বাসায় ৪ আগস্ট বিকেলে অভিযান পরিচালনা করে র‍্যাব। এ সময় বাসায় বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ ও অন্যান্য মাদক পাওয়া গেলে গ্রেপ্তার হন পরীমনি।

টুয়েন্টিফোর বাংলাদেশ নিউজ/এসকে
আরও পড়ুন