নোয়াখালীতে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করায় আটক ১১।

নোয়াখালী আওয়ামী লীগের তিন গ্রুপের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি ও সমাবেশকে কেন্দ্র করে জারি করা ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে মিছিলের চেষ্টা করায় লাঠিপেটা করে মিছিলকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় শহরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ১১ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) মাইজদীর বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

পুলিশ জানায়, বেলা সোয়া ১১টার দিকে গণপূর্ত ভবনের সামনে থেকে একটি মিছিল জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের দিকে যেতে চাইলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এসময় সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরীর পক্ষে স্লোগান দেন মিছিলকারীরা।

আটকরা হচ্ছেন, সোনাইমুড়ী উপজেলার আলোকপাড়া গ্রামের মৃত নুরুল আমিনের ছেলে জাহিদুল ইসলাম (১৯), সুবল রবি দাসের ছেলে বিজয় রবি দাস (১৯), খলিলুর রহমানের ছেলে জাহিদ হোসেন (১৮), শিমুলিয়া গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে ইফরান আহাম্মেদ (২০), সেনবাগ উপজেলার ছাতারপাইয়া গ্রামের আবুল বাশারের ছেলে হাবিবুর রহমান (১৮), সুধারাম থানার পশ্চিম শফিপুর গ্রামের বাবুল চৌকিদারের ছেলে মো. রাসেল (২১), পূর্ব এওজবালিয়া গ্রামের জহিরুল হকের ছেলে মো. আরজু (২৫), দাদপুর গ্রামের জহিরের ছেলে বিজয় (১৪), মাইজদী হাউজিং গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মাহফুজুর রহমান (২১), মুন্সির তালুক গ্রামের আবদুল মান্নানের ছেলে মো. সোহেল (২৯) ও চাটখিল উপজেলার দশানী টবগা গ্রামের জমির উদ্দিনের ছেলে মো. জিহাদ (২০)।

নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ১১ জনকে আটক করে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

টুয়েন্টফোর বাংলাদেশ নিউজ/বরকত উল্লাহ
আরও পড়ুন