শিগগির আসছে করোনার ট্যাবলেট

করোনা চিকিৎসায় খুব শিগগির বাজারে আসছে ওষুধ। মুখে খাওয়া এ ওষুধ হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যুঝুঁকি অর্ধেকে আনবে, বলছেন গবেষকরা। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এপি। এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের মেরেক ও রিজব্যাক বায়োথেরাপিউটিকসের মোলনুপিরাভির ওষুধ গবেষণার শীর্ষে রয়েছে বলে দাবি করছে প্রতিষ্ঠানটি।

যুক্তরাষ্ট্রের মেরেক ও রিজব্যাক কর্তৃপক্ষের উদ্ভাবিত এ ট্যাবলেট সম্ভবত করোনার মুখে খাওয়া ওষুধের প্রথম হিসেবে স্বীকৃতি পাবে যদি দেশটির ফুড অ্যান্ড ড্রাগ এডমিনিস্ট্রেশন(এফডিএ) অনুমোদন দেয়।

এই ওষুধের প্রস্তুতকারক মার্ক বলেন, করোনা রোগীদের জরুরী ভিত্তিতে সেবা দেওয়ার জন্য আমরা খাদ্য ও ওষুধ অধিদফতরের কাছে আবেদন করবো। আশা করছি কিছুদিনের মধ্যেই তারা জরুরী ব্যবহারের জন্য এই ওষুধের অনুমোদন দেবে। যদি এমন হয়, তাহলে আমাদের এই ওষুধ বিশ্বের বুকে প্রথম করোনার ওষুধ হবে।

এপি জানায়, গবেষণায় ৭৭৫ জন স্বেচ্ছাসেবির ওপর ওষুধটি প্রয়োগ করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ৮ শতাংশ করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। ১৪ শতাংশ সামান্য অসুস্থতা অনুভব করেছে। তবে কারো মৃত্যু হয়নি।

গবেষণায় যুক্ত থাকা গবেষকরা দাবি করছেন, পরীক্ষার স্তর পেরোলে এবং ছাড়পত্র মিললেই বাজারে চলে আসবে এই ওষুধ। শরীরে কোভিড ধরা পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই এই ধরনের ওষুধ খাওয়া শুরু করে দেওয়া যেতে পারে। এতে উপসর্গ বড় আকার নিতে পারে না।

টুয়েন্টিফোর বাংলাদেশ নিউজ/বরকতউল্লাহ
আরও পড়ুন