পর্যটক ঠেকাতে রাতের আঁধারে কাশবনে আগুন!

সাদা ফুলে ভরে গিয়েছিল কাশবন। সেই কাশবন দেখতে আর ছবি তুলতে প্রতিদিন ভিড় করতেন শত শত পর্যটক। দূর-দূরান্ত থেকে গাড়ি নিয়েও আসতেন পর্যটকরা। কিন্তু পর্যটকদের এই আগমনকে ভালো চোখে দেখেনি একটি মহল।

তাই রাতের আঁধার নামতেই আগুন দিয়ে কাশবনটি পুড়িয়ে দিয়েছে তারা।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যার পর সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কের গোলাপগঞ্জ উপজেলাধীন চৌঘরি এলাকার রাণাপিং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এতে স্থানীয় পর্যটন ও প্রকৃতিপ্রেমীদের মাঝে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

বিশাল জায়গাজুড়ে কাশবনে ফুল ফুটলে স্থানীয়দের কাছে কাশবনটি আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়।

প্রকৃতিপ্রেমীরা প্রতিদিন ছুটে যেতেন কাশবনে। অনেকে অলস বিকেলে সময় কাটাতেও যেতেন সেখানে। কাশফুলের মাঝে ছবি তুলে ফিরতেন বাড়িতে। গেল কয়েকদিন ধরেই এই কাশবনে লোকজনের আগমন বাড়তে থাকে।

এই অবস্থায় গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যার পর কে বা কারা কাশবনে আগুন লাগিয়ে দেয়। আগুন দেখে স্থানীয় লোকজন সেখানে ছুটে গেলেও চেয়ে দেখা ছাড়া আর কিছু করার ছিল না। চোখের সামনেই কাশবনটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

স্থানীয়রা বলছেন, ওই এলাকায় পর্যটকদের আগমন ও ছবি তোলার বিষয়টি কিছু মানুষ ভাল চোখে দেখছিলেন না। এরকম কাজ কেবল বিকৃত মানসিকতার লোকজনই করতে পারে।

তাই প্রকৃতি ও পর্যটনবিদ্বেষী এই কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িতদের খুঁজে বের করে শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

টুয়েন্টিফোর বাংলাদেশ নিউজ/এসকে
আরও পড়ুন