বকশীগঞ্জে পাহাড়ী এলাকা থেকে মহিলার মরদেহ উদ্ধার

বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম সম্রাট জানান, এঘটনায় সামিরন বেগমের পালক কন্যা বেলা আক্তার একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। তিনি জানান, পুলিশ এই খুনের রহস্য উদঘাটন করতে মাঠে কাজ করছে। জড়িত যেই থাকুক না কেন তাকে দ্রত আইনের আওতায় আনা হবে।

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের নিজ ঘরে সামিরন বেগম (৫৫) নামে এক নারীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) রাত ১১টার দিকে ধানুয়া কামালপুর ইউনিয়নের গারো পাহাড়ের লাউচাপড়া ডুমুরতলা আশ্রয়ণ প্রকল্পে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সামিরন বেগম স্থানীয় মৃত নেহাল মিয়ার স্ত্রী।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, লাউচাপড়া ডুমুরতলা আশ্রয়ণ প্রকল্পের একটি ঘরে বসবাস করতেন ডুমুরতলা গ্রামের সামিরন বেগম। রাতে নিজ ঘরে শুয়ে পড়েন তিনি। রাত ১১টার দিকে দুর্বৃত্তরা তার ঘরে ঢুকে তাকে এলোপাতারি কুপিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। এসময় আশ্রয়ণ প্রকল্পের অন্যান্য বাসিন্দারা হৈ হুল্লোরের শব্দ শুনে এগিয়ে এসে মরদেহ দেখে বকশীগঞ্জ থানা পুলিশকে খবর দেয়।

খবর পেয়ে থানা পুলিশ গভীর রাতে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে শুক্রবার (৮ অক্টোবর) সকালে ময়না তদন্তের জন্য জামালপুর মর্গে পাঠিয়েছেন।

বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম সম্রাট জানান, এঘটনায় সামিরন বেগমের পালক কন্যা বেলা আক্তার একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। তিনি জানান, পুলিশ এই খুনের রহস্য উদঘাটন করতে মাঠে কাজ করছে। জড়িত যেই থাকুক না কেন তাকে দ্রত আইনের আওতায় আনা হবে।

টুয়েন্টিফোর বাংলাদেশ নিউজ/সুমন
আরও পড়ুন